আজ: মঙ্গলবার ৭ই ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৯শে ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ইং, ১২ই জমাদিউস-সানি ১৪৪০ হিজরী

বিপিএলে শিরোপা জিতবে কোন দল?

রবিবার, ০৩/০২/২০১৯ @ ৬:১৩ অপরাহ্ণ । খেলাধুলা শীর্ষ খবর

নিউজ ডেস্ক: তারকা সমৃদ্ধ খেলোয়াড়, অভিজ্ঞতা এবং পারফর্মেন্স বিবেচনায় রংপুর রাইডার্স, ঢাকা ডায়নামাইট, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স এবং চিটাগং ভাইকিংস বলতে গেলে সমানে সমান। প্রত্যেকেরই সামর্থ আছে শিরোপ জয়ের। তবে রংপুর রাইডার্সের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা বলছেন, বিপিএলের চলমান ষষ্ঠ আসরে ফাইনালে খেলবে কুমিল্লা এবং ঢাকা।

বিপিএলের সর্বশেষ আসরে মাশরাফির নেতৃত্বে শিরোপা জয়ী রংপুর এবারও ট্রফি জয়ের জন্য লড়াই করছে। আর এই লড়াইয়ে দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন বিপিএলের অন্যতম সফল অধিনায়ক মাশরাফি। বিপিএলের গত পাঁচ আসরে তিনবারের চ্যাম্পিয়ন অধিনায়ক মাশরাফি। আরও একটি ট্রফি জয়ের দ্বারে প্রান্তে বাংলাদেশ দলের অন্যতম সেরা এই ক্রিকেটার।

চলতি বিপিএলে শুরুতে ভালো করতে না পারলেও মাঝ পথে এসে দুর্দান্ত খেলা শুরু করে রংপুর। সেই দুর্দান্ত শুরুর পর থেকেই রীতিমতো উড়ছে রংপুর। ১২ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে মাশরাফির নেতৃত্বাধীন দলটি।

রংপুরকে শিরোপা উপহার দিতে অসাধারণ পারফর্ম করে যাচ্ছেন রাইলি রুশো, অ্যালেক্স হেলস, মাশরাফি, শফিউল ও ফরহাদ রেজারা। তবে ক্রিস গেইল দলে থাকলেও প্রত্যাশিত ব্যাটিং করতে পারছেন না। মাশরাফির বিশ্বাস দলের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ব্যাট হাতে জ্বলে উঠবেন গেইল। নক আউট পর্বের ম্যাচগুলোতে রবি বোপারা এবং বিনি হাওয়েলরাও দলের প্রত্যাশা পূরণে সমর্থ হবেন সেই আশাই করছেন অধিনায়ক।

বিপিএলের আগের পাঁচ আসরের মধ্যে তিনবারে চ্যাম্পিয়ন ঢাকা ডায়নামাইটস। ২০১৬ সালে রাজশাহীকে হারিয়ে শিরোপা নিশ্চিত করে সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বাধীন দলটি। চতুর্থ শিরোপা ঘরে তুলতে সাকিবের নেতৃত্বে লড়ছে ঢাকা। সাকিব, সুনীল নারিন, আন্দ্রে রাসেল, কায়রন পোলার্ড, এবং সবশেষ অন্তর্ভূক্তি উপল থারাঙ্গারা যদি নকআউট পর্বে নিজেদের স্বভাবসুলভ ক্রিকেট খেলতে পারেন তাহলে ট্রফি নিশ্চিত।

২০১৫ সালে মাশরাফির নেতৃত্বে বিপিএল শিরোপা জিতে নেয় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। চলতি আসরেও দুর্দান্ত খেলছে কোচ সালাউদ্দিনের শীষ্যরা। ১২ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয় পজিশনে থাকা কুমিল্লা দুর্দান্ত ফর্মে আছে। নকআউট পর্বের ম্যাচগুলোতে তামিম ইকবাল, সাইফউদ্দিন, শহীদ আফ্রিদি, ইভিন লুইস, থিসেরা পেরেরা এবং ওয়াহাব রিয়াজরা যদি প্রত্যাশিত পারফরম্যান্স করতে পারেন তাহলে শিরোপা জয়ে ব্যাক পেতে হবে না কুমিল্লার।

শিরোপা জয়ের রেসের আছে চিটাগং ভাইকিংস। গ্রুপ পর্বের ১২ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে সুপার ফোরে তৃতীয় পজিশনে রয়েছে চিটাগং। দলকে নকআউট পর্বে তুলতে নান্দনিক পারফরম্যান্স করেন মুশফিকুর রহিম, ইয়াসির আলী, আবু জায়েদ রাহীরা।

২০১৩ সালের বিপিএলে ফাইনালে খেলে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরসের বিপক্ষে হেরে রানার্সআপ হয়েছিল চিটাগং কিংস। এবার প্রত্যাশিত পারফরম্যান্স করতে পারলে মুশফিকের নেতৃত্বে প্রথমবার শিরোপা জয়ের স্বাদ পাবে চিটাগং।

ফ্রি স্টাইলে লুটপাট চললে গণতন্ত্র চলতে পারে না: ড. কামাল
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আসছেন জোলি