আজ: সোমবার ৯ই বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২২শে এপ্রিল ২০১৯ ইং, ১৬ই শাবান ১৪৪০ হিজরী

ধনী বৃদ্ধির হারে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান তৃতীয়

শনিবার, ১৯/০১/২০১৯ @ ১২:৩৮ অপরাহ্ণ । অর্থ ও বাণিজ্য শীর্ষ খবর

নিউজ ডেস্ক: ধনী মানুষের সংখ্যা বৃদ্ধির হারের দিক থেকে এগিয়ে গেছে বাংলাদেশ। ধনী বৃদ্ধির হারে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান এখন তৃতীয়।

বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের সম্পদ গবেষণা প্রতিষ্ঠান ওয়েলথ-এক্স ‘গ্লোবাল এইচএনডব্লিউ অ্যানালাইসিস: দ্য হাই নেট ওর্থ হ্যান্ডবুক’ শীর্ষক এক প্রতিবেদনে বিষয়টি প্রকাশ করে।

এ তালিকায় ১০-৩০ লাখ মার্কিন ডলারের সম্পদের মালিককে রেখেছে সম্পদ গবেষণা প্রতিষ্ঠানটি। ২০১৮ সালে সম্পদশালী বৃদ্ধির হার ও ২০২৩ সাল পর্যন্ত প্রক্ষেপণ ধরে এ হিসাব করা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৮ থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত ১০টি দেশ ধনী বৃদ্ধির হারে শীর্ষে থাকবে। আগামী পাঁচ বছর বাংলাদেশে ধনী মানুষের সংখ্যা ১১ দশমিক ৪ শতাংশ হারে বাড়বে।

এতে বলা হয়, ধনী বৃদ্ধির হারে বিশ্বে শীর্ষে থাকবে নাইজেরিয়া। দ্বিতীয় অবস্থানে মিসর। এর পরের অবস্থানে রয়েছে বাংলাদশ। তার পর যথাক্রমে ভিয়েতনাম, পোল্যান্ড, চীন, কেনিয়া, ভারত, ফিলিপাইন ও ইউক্রেন।

এর আগে গত সেপ্টেম্বরে ওয়েলথ-এক্স এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, গত পাঁচ বছরে ধনীদের সম্পদ বৃদ্ধির বিবেচনায় শীর্ষে রয়েছে বাংলাদেশ। দ্রুত সম্পদ বৃদ্ধির তালিকায় চীন-যুক্তরাষ্ট্রকে পেছনে ফেলে শীর্ষস্থান দখল করেছেন বাংলাদেশের ধনীরা।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারত ও হংকংয়েও উল্লেখযোগ্যসংখ্যক সম্পদশালী রয়েছে। দ্রুত বাড়ছে এসব ধনীর সম্পদের পরিমাণ। তবে বাংলাদেশি ধনীদের সম্পদ বাড়ছে তার চেয়েও দ্রুতগতিতে।

নিজস্ব ‘ওয়েলথ অ্যান্ড ইনভেস্টেবল অ্যাসেটস মডেল’ ব্যবহার করে প্রতিবেদনটি তৈরি করে ওয়েলথএক্স। প্রতিষ্ঠানটির নতুন এ মডেলের মাধ্যমে ব্যক্তিগত মোট সম্পদের আনুমানিক তথ্য পাওয়া যায়।

বৈশ্বিকভাবে সম্পদের এ ধরনের বিশ্লেষণ ছাড়াও শীর্ষ ৭৫টি অর্থনীতির দেশে সম্পদের ব্যাপ্তি ও প্রবৃদ্ধি ওয়েলথএক্সের গবেষণার বিষয়বস্তু।

এর আগে ওয়েলথএক্সের ‘ওয়ার্ল্ড আলট্রা ওয়েলথ রিপোর্ট ২০১৮’ শীর্ষক প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, ২০১২ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশে ধনকুবেরদের সামগ্রিক সম্পদের বার্ষিক প্রবৃদ্ধি ১৭ দশমিক ৩ শতাংশ। আর ধনীদের সম্পদ প্রবৃদ্ধির এ হারের সুবাদে ওয়েলথএক্সের তৈরি তালিকায় শীর্ষ দশের প্রথম স্থানটিই বাংলাদেশের।

ওয়েলথ এক্সের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ধনীদের সম্পদের দ্রুত বৃদ্ধি বিবেচনায় বাংলাদেশের পরই আছে চীন। দেশটিতে ধনীদের সম্পদ বৃদ্ধির বার্ষিক হার ১৩ দশমিক ৪ শতাংশ। তালিকার তৃতীয় স্থানে থাকা ভিয়েতনামের ধনীদের সম্পদ বৃদ্ধির হার ১২ দশমিক ৭ শতাংশ।

পঞ্চম স্থানে থাকা প্রতিবেশী ভারতের ধনীদের সম্পদ স্ফীত হচ্ছে বার্ষিক ১০ দশমিক ৭ শতাংশ হারে। ধনীদের দ্রুত সম্পদ বৃদ্ধির তালিকায় ভারতের পরই রয়েছে হংকং। এখানকার ধনীদের সম্পদ বাড়ছে বার্ষিক ৯ দশমিক ৩ শতাংশ হারে।

পরের স্থানগুলোয় থাকা আয়ারল্যান্ডের ধনীদের বার্ষিক সম্পদ বৃদ্ধির হার ৯ দশমিক ১, ইসরাইলের ৮ দশমিক ৬, পাকিস্তানের ৮ দশমিক ৪ ও যুক্তরাষ্ট্রের ৮ দশমিক ১ শতাংশ।

চিটাগাং ভাইকিংসের হ্যাটট্রিক জয়
বাংলাদেশ হবে উন্নত-সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী