আজ: রবিবার ২রা পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৬ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং, ৮ই রবিউস-সানি ১৪৪০ হিজরী

সিটি নির্বাচনে সেনা মোতায়েন করা উচিত: বদিউল আলম মজুমদার

শনিবার, ৩০/০৬/২০১৮ @ ৫:৩০ অপরাহ্ণ । জাতীয় শীর্ষ খবর

নিউজ ডেস্ক: আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ব্যর্থ হলে সিলেটসহ তিন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সেনা মোতায়েন করা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজন সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার। তিনি বলেছেন, সেনাবাহিনীর ওপর মানুষের আস্থা আছে। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত আমাদের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি মানুষের আস্থা কমে গেছে। ফলে নির্বাচন কমিশনকে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

শনিবার সিলেট নগরীর একটি হোটেলে স্বেচ্ছাব্রতীদের নিয়ে ‘আসন্ন সিটি করপোরেশন নির্বাচন : নাগরিক ভাবনা’ শীর্ষক মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন। অন্য এক প্রশ্নের জবাবে বদিউল আলম বলেন, খুলনা ও গাজীপুরের সিটি নির্বাচন অনেকটা প্রশ্নবিদ্ধ। নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ভূমিকা ছিল বিতর্কিত।

এর আগে অনুষ্ঠিত সভায় বদিউল আলম মজুমদার বলেন, নিয়ন্ত্রিত নির্বাচন নিয়ন্ত্রিত গণতন্ত্রেরই জন্ম দেয়, যা কোনো গণতন্ত্রই নয়। নির্বাচন হলো নিয়মতান্ত্রিক ও শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা বদলের প্রক্রিয়া। এটি যদি বন্ধ হয়ে যায় তাহলে অনিয়মতান্ত্রিকভাবে বা সহিংস পন্থায় ক্ষমতার বদল হয়, যা কারো কাম্য হতে পারে না। তাই গণতান্ত্রিক ব্যবস্থায় অবাধ, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের কোনো বিকল্প নেই।

মতবিনিময় সভায় সুজন সিলেট জেলা কমিটির সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাহ শাহেদা আক্তার, আঞ্চলিক সমন্বয়কারী আবদুল হালিম, স্থানীয় উজ্জীবক, নারীনেত্রী এবং ইয়ুথ লিডারসহ ৭৫ জন স্বেচ্ছাব্রতী অংশ নেন।

সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নিশ্চিত করার জন্য ড. বদিউল আলম মজুমদার সভায় কিছু প্রস্তাব তুলে ধরেন। এর মধ্যে রয়েছে, প্রার্থী ও সমর্থকরা যাতে নির্বিঘ্নে প্রচার চালাতে পারে তা নিশ্চিত করা; নির্বাচনে টাকার খেলা বন্ধ করা; ভোটের দিনে প্রতি পুলিং বুথে এজেন্ট দিতে পারা এবং এজেন্টদের হয়রানি না; ভোটারদের হুমকি-ধমকি না দেওয়া; নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে চলা ইত্যাদি।

এভাবে মরবে কেন ফুটফুটে শিশুটি
খালেদা জিয়ার সঙ্গে স্বজনদের স্বাক্ষাৎ