আজ: মঙ্গলবার ৭ই ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৯শে ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ইং, ১২ই জমাদিউস-সানি ১৪৪০ হিজরী

জাপা কীভাবে এ ধরনের আবদার করে!

রবিবার, ২৯/১১/২০১৫ @ ৩:৩০ অপরাহ্ণ । জাতীয় রাজনীতি

নিউজ ডেস্ক :  আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্যদের প্রচারণার সুযোগ দেয়ার দাবির প্রসঙ্গে বিএনপি নেতা ড. ওসমান ফারুক বলেন, ‘আমরা বুঝলাম না জাতীয় পার্টি কীভাবে এ ধরনের আবদার করে! আওয়ামী লীগের এ ধরনের দাবি স্বাভাবিক। কিন্তু জাতীয় পার্টির দাবি ‍শুনে আমি তো অবাক। মন্ত্রী-এমপিদের প্রচারণার সুযোগ দেয়ার দাবিটা একটা রাস্তার মানুষেও সাপোর্ট করবে না। এই দাবি কখনই গ্রহণযোগ্য নয়।’

তিনি বলেন, ‘সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে ইসিকে অবস্থান সুদৃঢ় করতে হবে। এর বাইরে কোনো ব্যত্যয় ঘটলে শুধু ইসি নয়, সরকারের ভাবমূর্তিও ক্ষুণ্ণ হবে। ইসি সরকারের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ হিসেবে বিবেচিত হবে।’

রোববার দুপুরে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) সঙ্গে দেখা করে বেরিয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন বিএনপি নেতা।

দুপুর ২টায় ১৫ দফা দাবি নিয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দিনের সঙ্গে দেখা করে চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ড. এম ওসমান ফারুকের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধি দল। প্রায় ৪৫ মিনিট তারা সেখানে অবস্থান করেন।

পৌর নির্বাচনের তফসিল অন্তত ১৫ দিন পেছানোর জন্য নির্বাচন কমিশনে লিখিত দাবি জানান তারা। সেই সঙ্গে দশম সংসদের সংসদ সদস্যদের স্থানীয় নির্বাচনে প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণার সুযোগ না দেয়ার বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে দলটি।

বের হয়ে ওসমান ফারুক সাংবাদিকদের বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন তাড়াহুড়া করে পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে। এ কারণে অনেক পেপার কার্যক্রম সম্পূর্ণ না হয়ে আমাদের প্রস্তুতি নিতে হচ্ছে। এ কারণে আমরা নির্বাচন ১৫ দিন পেছানোর দাবি করেছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘নির্বাচন পেছানোর প্রসঙ্গে সিইসি বারবার আইনি বাধ্যবাধকতার কথা বলছেন। আমরা বলেছি, মানুষের প্রয়োজনে আইন। প্রয়োজনে হলে আইন পরিবর্তন করে নির্বাচন ১৫ দিন পেছিয়ে দিবে।’

আইনের বেড়াজালে ইসি আটকে থাকলে কমিশনের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘১৫ দিন নির্বাচন পেছানো কমিশনের সদিচ্ছার ব্যাপার। আইনের বেড়াজালে আটকে থেকে জনস্বার্থ বিরোধী সিদ্ধান্ত নিলে সংবিধানিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে কমিশনের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে পড়বে।’

নির্বাচন কমিশন তাদের দাবি না মানলে দলীয় পর্যায়ে আলোচনা পরবর্তী করণীয় ঠিক করে নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা হলেন : যুবদলের সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শাসছুজ্জামান দুদু, এসএম আব্দুল হালীম, ক্যাপ্টেন সুজা উদ্দিন।

বিল বকেয়া : জাপা অফিসের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন
মনোবল ভাঙার জন্যই পুলিশ হত্যা