আজ: মঙ্গলবার ৮ই শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২৩শে জুলাই ২০১৯ ইং, ১৯শে জিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী

শঙ্কামুক্ত নন এরশাদ

সোমবার, ০১/০৭/২০১৯ @ ৬:০৫ অপরাহ্ণ । জাতীয় দিনের সেরা রাজনীতি শীর্ষ খবর

নিউজ ডেস্ক: বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে- এমন তথ্য জানিয়ে দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

তিনি বলেছেন, পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল থাকা মানেই শুভ লক্ষণ। এখনও অক্সিজেন দিয়ে রাখা হয়েছে। তিনি আধো ঘুম-আধো জাগরণে আছেন। রোববার থেকে তার শারীরিক অবস্থার কোন অবনতি হয়নি। সিএমএইচ’এর চিকিৎসকরা মনে করছেন শারীরিক এই অবস্থায় আপাতত তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে নেয়ার পরিস্থিতি নেই। জিএম কাদের বড়ভাই এরশাদের শারীরিক অবস্থা নিয়ে গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভ্রান্তিকর খবর বা গুজব না ছড়াতে সবার প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন।

সোমবার দুপুরে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সর্বশেষ শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে জানাতে গণমাধ্যম কর্মীদের ব্রিফ করার সময় জি এম কাদের এসব কথা বলেন। জাতীয় পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপিও এসময় সাংবদিকতের সাথে কথা বলেন।

এ সময় সাইদুর রহমান টেপা, গোলাম কিবরিয়া টিপু এমপি, হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, সুনীল শুভ রায়, লে.জে. (অব.) মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী এমপি, মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা, ফখরুজ্জামান জাহাঙ্গীর, আলমগীর সিকদার লোটন, এমরান হোসেন মিয়া, অধ্যাপক ইকবাল হোসেন রাজু, জহিরুল ইসলাম জহির, নুরুল ইসলাম নুরু, সর্দার শাহজাহান, নিগার রানী সুলতানা, মোস্তাকুর রহমান মোস্তাক, লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি, গোলাম মোহাম্মদ রাজু, হাসিবুল ইসলাম জয়, এস.এম. ইয়াসির, সুলতান আহমেদ সেলিম, শাহ-ই আজম, বেলাল হোসেন, মাহামুদা মুন্নি, এম.এ. রাজ্জাক খান, আবু সাঈদ স্বপন, ইফতেখার আহসান হাসান, আহমেদ শফি রুবেল, মাখন সরকার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে জিএম কাদের বলেন, চিকিৎসকরা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থার উন্নতি নিয়ে আশবাদী। চিকিৎসকরা এরশাদের শ্বাস-প্রশ্বাস স্বাভাবিক করতে আন্তরিকভাবে চিকিৎসা করে যাচ্ছেন। তারা নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছেন তার সবশেষ শারীরিক উন্নতি। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ আধো ঘুম-আধো জাগরণে আছেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সিএমএইচে আসেন। এসময় চোখ মেলে তার কথায় সাড়াও দিয়েছেন এরশাদ। ডাক্তাররা বলছেন উনি একটু তন্দ্রাচ্ছন্ন অবস্থার মধ্যে আছেন বিভিন্ন ওষুধের প্রভাবে। আধো ঘুম আধো সজাগ অবস্থা যেটাকে বলে। ওবায়দুল কাদের সাহেব আসার পর ডাক্তাররা উনাকে সেই কথাই বললেন। তখন উনি চোখ মেলে তাকিয়েছেন। মুখে মাস্ক থাকায় এরশাদ কথা বলতে পারেননি।

উন্নত চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে নেওয়ার সম্ভাবনা আছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে জি এম কাদের বলেন, এই মুহূর্তে তাকে কোথাও নেয়াটা ডাক্তাররা সাজেস্ট করছেন না। অন্য কোথাও শিফট করাটা সঠিক কোনো সিদ্ধান্ত হবে বলে ডাক্তাররা মনে করেন না। অথবা যে চিকিৎসা চলছে সেটা সন্তোষজনক হচ্ছে বলে তারা মনে করেন। সিএমএইচ কর্তৃপক্ষ বলছেন, এই শারীরিক অবস্থায় উনাকে শিফট করাটা সঠিক হবেনা। তবে এটা আমাদের ওপর ছেড়ে দিয়েছেন। আমরাও ডাক্তারদের পরামর্শ ছাড়া কোনও সিদ্ধান্তে যাব না।

জিএম কাদের বলেন, রোববার এরশাদের ফুসফুসের ইনফেকশান বেড়েছিল, সেটা কমের দিকে। যে শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল, আন্ডার প্রেসার অক্সিজেন দিতে হত। এখন দুই ঘণ্টা আন্ডার প্রেসার, দুই ঘণ্টা নরমাল অক্সিজেন দিচ্ছেন। এই ধরনের ট্রেন্ড চালু থাকলে নরমাল অক্সিজেন দেয়া হবে। এরপর পরিস্থিতির উন্নতি ঘটলে অক্সিজেন সরিয়ে নেয়া হবে।

এরশাদের সংক্রমণ কিডনিতেও ছড়ানোর কথা জানিয়ে জি এম কাদের বলেন, তার কিডনিতে ইনফেকশান একটু বেড়েছে। ডাক্তাররা এখন সেদিকে দৃষ্টি রাখছেন। তবে উনি শঙ্কামুক্ত নন। আমরা আশাবাদী উনি সুস্থ হয়ে উঠবেন। ভাইয়ের সুস্থতার জন্য তিনি দল ও পরিবারের পক্ষ থেকে দেশবাসীর কাছে দোয়া চান।

সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বয়সজনিত নানা শারীরিক জটিলতা নিয়ে গত ২২ জুন থেকে সিএমএইচে চিকিৎসায় আছেন। তবে এসময়ের মধ্যে তিনি হাসপাতাল এবং বারিধারার বাসায় আসা যাওয়ার মধ্যে ছিলেন। শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে ২৬ জুন রাতে হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর থেকে তার শারীরিক অবস্থার খুব একটা উন্নতির খবর মেলেনি।

এরশাদের ছোট ভাই ও পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের রোববার হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থার অবনতির কথা গণমাধ্যমে জানানোর ফেইসবুকসহ নানান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার মৃত্যুর গুজবও ছড়িয়ে পড়ে।

এ প্রসঙ্গে জি এম কাদের অনুরোধ করেন, কেউ যেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কোনো খবরে বিশ্বাস না করেন। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে সারা দেশের মানুষ উৎকণ্ঠায় আছে। তারা প্রতি মুহূর্তেই জানতে চাচ্ছেন, দোয়া করছেন। তারই পরিপ্রেক্ষিতে কিছু মানুষ অযথা গুজব ছড়িয়ে উদ্বেগ উৎকন্ঠা বাড়িয়ে দিচ্ছে। একারণে আমরা মনে করি তার বিষয়ে সঠিক তথ্য পৌঁছে দেয়া প্রয়োজন। তিনি সবার প্রতি অনুরাধ রেখে বলেন, আমাদের বক্তব্যের বাইরে কোনো বক্তব্য নিজে থেকে প্রচার করবেন না। বিশেষ করে ফেইসবুকের মাধ্যমে অযথা কোনো সংবাদ দেবেন না।

জিএম কাদের বলেন, সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে নিয়মিত ব্রিফ করা হচ্ছে। প্রয়োজন হলে আইএসপিআর ব্রিফ করবে। তিনি গণমাধ্যম বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভ্রান্তকর বা বানোয়াট খবর প্রচার না করতেও অনুরোধ জানান।

এসময় জাতীয় পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, আমরা আশা করছি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ পুরোপুরি সুস্থ হয়ে সংসদে তার নির্ধারিত আসনে বসতে পারবেন। আবারো দেশ ও জাতীর কল্যাণে সংসদে কথা বলবেন।

রাঙ্গা বলেন, প্রধানমন্ত্রী সার্বক্ষণিকভাবে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী সকালে পার্টির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে সিএমএইচে পাঠিয়েছেন। বিকেলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকসহ সরকারের পক্ষ থেকে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে দেখতে যান। তিনিও দেশবাসীর কাছে এরশাদের রোগমুক্তি এবং সুস্থতা কামনায় দোয়া চেয়েছেন।

এরশাদের শয্যাপাশে রওশন : হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সহধর্মিনী, জতীয় সংসদে বিরোধী দলীয় উপনেতা এবং জাতীয় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান বেগম রওশন এরশাদ এমপি সোমবার দুপুরে সিএমএইচে যান। এরশাদের শয্যাপাশে প্রায় এক ঘন্টা অবস্থান করেন তিনি। এসময় কোরআন তিলাওয়াতও করেছেন রওশন এরশাদ।

হাসপাতাল থেকে বের হয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের তিনি বলেন, এরশাদের শারীরিক অবস্থার উন্নতি হচ্ছে। রওশন এরশাদ এসময় এরশাদের রোগমুক্তি এবং সুস্থতার জন্য দেশবাসীর দোয়া কামনা করেন।

হাসপাতালে ওবায়দুল কাদের : এর আগে সকাল সাড়ে ১০ টায় সিএমএইচে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে দেখতে যান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের ও মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গাসহ দলটির শীর্ষ নেতারা এসময় সঙ্গে ছিলেন।

এরশাদকে দেখে ফেরার পথে ওবায়দুল কাদের বলেন, তার অবস্থা অপরিবর্তিত। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে অক্সিজেন সাপোর্টে রাখা হয়েছে। তার অবস্থা উন্নতির দিকে।

নেতা-কর্মীরা উদ্বেগ উৎকন্ঠায়, হাসপাতালে বাইরে ভীড় : এদিকে পার্টি চেয়ারম্যানে অসুস্থতার খবর এবং মৃত্যুর গুজবকে কেন্দ্র করে রোববার রাত থেকে উদ্বেগ-উৎকন্ঠার মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন দলটির নেতা-কর্মীরা। রোববার রাতেই হাসপাতালের সামনে গিয়ে ভীড় করেন জাতীয় পার্টির প্রায় শতাধিক নেতা-কর্মী।

সোমবার সকাল থেকেই সেখানে নেতা-কর্মীদের উপস্থিতি বাড়তে থাকে। সকাল ৭ টায় জিএম কাদের হাসপাতালে আসেন। এরপর পরপরই আসে মশিউর রহমান রাঙ্গা। কিছুক্ষণ পর এরশাদের শারীরিক অবস্থার খোজ নিতে সিএমএইচে ছুটে আসেন প্রেসিডিয়াম সদস্য সাইদুর রহমান টেপা, গোলাম কিবরিয়া টিপু এমপি, আজম খান, হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, সুনীল শুভ রায়, লে.জে. (অব.) মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী এমপিসহ দলটির শীর্ষ নেতারা।

দুপুর পর্যন্ত তারা সেখানেই ছিলেন। বনানী কার্যালয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের ব্রিফ করে জিএম কাদেরসহ দলের শীর্ষ নেতারা আবার হাসাপাতালে ছুটে যান। সঙ্গে বাকী নেতা-কর্মীরাও হাসপাতালমুখী হন। এর আগে রওশন এরশাদ এবং সাদ এরশাদ হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে দেখতে যান।

বিকেলে আরও একদফা তারা হাসাপাতালে ছুটে আসেন। বিকেলে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রী জাহিদ মালেক এরশাদকে দেখতে সিএমএইচে যান। জিএম কাদেরসহ দলটির নেতারা এসময় উপস্থিত ছিলেন। রোববার রাতে এরশাদকে হাসাপাতালে দেখতে যান তার দলের একসময়কার মহাসচিব ও জাতীয় পার্টি- জেপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জু।

এ প্রসঙ্গে জিএম কাদের বলেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ জাতীয় পার্টির প্রাণ। তার অসুস্থতার খবর দলের নেতা-কর্মীদের মনোবল ভেঙ্গে দেয়। স্বভাবতই তাই সারাদেশ থেকে নেতাকর্মীরা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থার খবর নিচ্ছেন। অনেকে এরই মধ্যে ঢাকায় চলে এসেছেন। অনেকে রাত দিন হাসাপাতালের সামনেই কাটিয়ে দিচ্ছেন। এরশাদের রোগমুক্তির কামনায় সারাদেশের মানুষ দোয়া দোরুদ পড়ছেন। অনেক জায়গায় মিলাদ মাহফিলেরও আয়োজন করা হয়েছে। আমরা আশা করি এরশাদ দ্রুত সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরবেন। সংসদে যোগ দেবেন। নেতা-কর্মীদের মাঝে সক্রিয় হবেন।

জানা গেছে, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের গুঞ্জন-গুজবের অবসান ঘটাতে সিএমএইচ কর্তৃপক্ষ সকালে টিভি স্ক্রিনে এরশাদকে দেখানো শুরু করেন। তাতে দেখা যায় তাকে অক্সিজেন দিয়ে রাখা হয়েছে, দু’একবার তাকে হাত-পা নাড়াতে দেখা গেছে বলে জানান দলের নেতাকর্মীরা।

লএনজি ব্যবসায়ীদের পকেট ভরতে গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি : মির্জা ফখরুল
পুলিশ হেফাজতে ডিআইজি মিজান
Download Best WordPress Themes Free Download
Premium WordPress Themes Download
Download Nulled WordPress Themes
Premium WordPress Themes Download
free download udemy paid course
download karbonn firmware
Download Best WordPress Themes Free Download
free online course

সর্বশেষ ১০ খবর