আজ: মঙ্গলবার ৮ই শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২৩শে জুলাই ২০১৯ ইং, ১৯শে জিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী

গণপূর্তের দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ব্যক্তিগত বাড়ি গুড়িয়ে দেয়ার

মঙ্গলবার, ১৬/০২/২০১৬ @ ১১:৪০ পূর্বাহ্ণ । জাতীয়

2016_02_16_15_24_48_BjsJ2OFDEksRdHpXSqahnxALdG6hsC_originalনিউজ ডেস্ক : নোটিশ ছাড়াই উচ্ছেদ অভিযানের নামে ব্যক্তি মালিকানাধীন একটি দ্বিতল বাড়ি গুড়িয়ে দিয়েছে মিরপুর গৃহায়ন বিভাগ। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে গত ১৪ জানুয়ারি মিরপুর রুপনগর এলাকার ১/বি,৩/৪ নম্বর  হোল্ডিংয়ের এ বাড়িটি গুড়িয়ে দেয়া হয়।
বাড়ির মালিক জিএম শাজাহান মঙ্গলবার রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, ‘গৃহায়ন অধিদপ্তরের মিরপুর বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী জিয়াউর রহমান ও সার্ভেয়ার জহির ভুল তথ্য দিয়ে এ উচ্ছেদ অভিযান করিয়েছেন।’ অন্যায় এ উচ্ছেদের প্রতিকার চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়সহ সংশ্লিষ্ট বিভাগে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে বলেও জানান বাড়ির মালিক জিএম শাজাহান।
ক্ষতিগ্রস্ত জিএম শাজাহান জানান, গৃহায়নের ওই দুই কর্মকর্তা মিরপুর দুয়ারিপাড়ায় বিভাগের প্রায় ১২’শ প্লট বরাদ্দপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের কাছে হস্তান্তর না করে অন্যদের কাছে ভাড়া দিয়ে মাসে লাখ লাখ টাকা আয় করে আসছিল। অবৈধ ওই কাজে বাধা দেয়ায় গণপূর্তের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মো. জিয়াউর রহমান এবং সার্ভেয়ার জহির তার উপর ক্ষিপ্ত হন। এক পর্যায়ে গণপূর্তের উপ-প্রকৌশলী জিয়াউর রহমান গৃহায়নের জমিতে অবৈধ প্রবেশের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে একটি মামলাও করেন। নানাভাবে হুমকি-ধামকিও দেয়া হয় বলে অভিযোগ করেন জিএম শাজাহান।
শাজাহান দাবি করেন, গুড়িয়ে দেয়া বাড়ির জায়গা তিনি কিনে নিয়েছেন। এ জায়গার মালিকানা নিয়ে কোনো মামলাও নেই। গুড়িয়ে দিতে বুলডোজার নিয়ে বাড়ির সামনে গেলে ম্যাজিস্ট্রেটকে তিনি বাড়ির মূল ও বায়া দলিল এবং বাড়ির গ্যাস, বিদ্যুৎ,পানির বিলও দেখান। এসময় দেখান বাড়ির বিপরীতে ব্যাংক থেকে নেয়া ঋণের কাগজপত্রও। কিন্তু এসব কাগজপত্র কোনোটাই আমলে নেয়নি ম্যাজিট্রেট। উল্টো তাকে আটক করার নির্দেশ দেন উপস্থিত পুলিশ সদস্যদের। পুলিশ অবশ্য তাকে আটক করা থেকে বিরত থাকে।
গণপূর্তের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী জিয়াউর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সব রকম নিয়মকানুনের মধ্যে থেকেই উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। এ জায়গাটি ১৯৭১/৭২ সালে সরকার অধিগ্রহণ করে। পরে ১৯৯০ সালে ডিসি অফিস তা গৃহায়ন কর্তৃপক্ষকে বুঝিয়ে দেয়।
তিনি জানান, ‘উচ্ছেদের আগে যথাবিহিত নোটিশও দেয়া হয়েছিল। ব্যক্তিগত শত্রুতা এবং মামলা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি ১৬৮ একর সরকারি সম্পত্তি উদ্ধার করেছি। এজন্য বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান আমার বিরুদ্ধে ১৭টি মামলা করেছে। আমাকেও মামলা করতে হয়েছে।’
শাজাহানের দলিল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এক শ্রেণির ভুমিদস্যু ও জালিয়াত চক্র ভুয়া দলিল বানিয়ে মানুষকে ধোঁকা দিচ্ছে। এটিও সেই প্রক্রিয়ারই অংশ।’
দুয়ারিপাড়ায় ১২শ’ প্লট থেকে ভাড়া আদায় প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এটি সম্পূর্ণ মিথ্যা। সেখানে ৪৭৪টি প্লটে অবৈধ বসবাসকারীদের শিগগিরই উচ্ছেদ করা হবে।’

ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিএনপির প্রার্থীকে প্রত্যয়ন করবে ফখরুল
গাজীপুরে নার্সকে ডিবি পুলিশের মারধর,প্রতিবাদে চিকিৎসাসেবা বন্ধ, ৩ পুলিশ প্রত্যাহার
Free Download WordPress Themes
Download Best WordPress Themes Free Download
Download Nulled WordPress Themes
Free Download WordPress Themes
free online course
download intex firmware
Download Best WordPress Themes Free Download
ZG93bmxvYWQgbHluZGEgY291cnNlIGZyZWU=

সর্বশেষ ১০ খবর